এইভাবে বানিয়ে নিন টক-মিষ্টি চালতার আচার, ভালো থাকবে ১ বছরেরও বেশি সময় ধরে! রইল রেসিপি

Chaltar Achar Recipe : আচার বা চাটনি খেতে সকলেই কম বেশি ভালোবাসেন। অনেকের তো আবার চাটনি বা আচার ছাড়া খাওয়া সম্পূর্ণ হয়না। কিন্তু রোজ রোজ

Nandini

tasty homemade chaltar achar recipe

Chaltar Achar Recipe : আচার বা চাটনি খেতে সকলেই কম বেশি ভালোবাসেন। অনেকের তো আবার চাটনি বা আচার ছাড়া খাওয়া সম্পূর্ণ হয়না। কিন্তু রোজ রোজ চাটনি বানানো হয়ে ওঠেনা। আর আচার যত পুরোনো হবে ততই তার স্বাদ দ্বিগুন হবে। তাই আজ আপনাদের জন্য থাকল টক-মিষ্টি চালতার আচার। একবার বানিয়ে নিন আর তারপর খান এক বছরেরও বেশি সময় ধরে। স্বাদ হবে দ্বিগুন। আর খাবারের শেষপাতে এই আচার পেলে মন হবে উৎফুল্ল। রইল আজকের চালতার আচারের রেসিপি (Chaltar Achar Recipe)

tasty chaltar achar recipe

চালতার আচারের রেসিপি উপকরণ(Chaltar Achar Recipe Ingredients)

১. বড় সাইজের চালতা ২ টি
২. পাঁচফোঁড়ন, ধনে, শুকনোলঙ্কা
৩. সাদা সর্ষে, তেজপাতা
৪. ৩০০ গ্রাম আঁখের গুড়
৫. সরিষার তেল, স্বাদমত নুন, হলুদ গুঁড়ো

চালতার আচারের রেসিপি প্রণালী(Chaltar Achar Recipe Instructions)

স্টেপ ১ – প্রথমে চালতা কেটে নিন। তারপর আঁচে কড়াই চাপিয়ে নিন। তাতে পরিমান মত জল দিয়ে অল্প নুন আর হলুদ ফেলে দিতে হবে। তারপর চালতা গুলো দিয়ে ৫-৭ মিনিট মত ফুটিয়ে নিতে হবে। সিদ্ধ চালতা জল ঝরিয়ে তুলে রাখতে হবে। এবার আবার আঁচে কড়াই বসিয়ে শুখনো খোলায় পাঁচফোঁড়ন, শুকনোলঙ্কা, অল্প সাদা সর্ষে, আর ধনে ভালো করে ভেজে নিয়ে গুঁড়িয়ে নিতে হবে।

chaltar achar recipe

স্টেপ ২ –  এবার কড়াইতে তেল দিতে হবে। তেল গরম হলে তাতে তেজপাতা, পাঁচফোঁড়ন আর শুকনোলঙ্কা ফোড়ন দিতে হবে। অন্যদিকে, সিদ্ধ চালতা গুলি সিল নোরার সাহায্যে থেঁতো করে নিতে হবে যাতে মশলা ভিতরে ঢোকে। ফোঁড়ন কিছুক্ষণ ভেজে নিয়ে থেঁতো করা চালতা কড়াইতে দিতে হবে।

tasty homemade chaltar achar

স্টেপ ৩ –   আর ভালো করে কিছুক্ষন ভেজে নিতে হবে। খুব সামান্য পরিমানে বুঝে নুন দিয়ে নিতে হবে প্রয়োজনে। তারপর চালতা কিছুক্ষন ভাজা হয়ে গেলে আঁখের গুড়টা কড়াইতে দিয়ে দিতে হবে। ৩-৪ মিনিট অন্তর অন্তর নাড়তে থাকতে হবে। নাড়াচাড়া করতে করতে গুড় শুকিয়ে আসবে।

স্টেপ ৪ –  তখন ভেজে গুঁড়ো করে রাখা মশলা উপর থেকে ছড়িয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে নামিয়ে নিতে হবে। আচার ৩-৪ দিন ভালো করে রোদে রেখে রোদ খাওয়াতে হবে। তাহলেই অনেকদিন ভালো থাকবে।

Related Post