গসিপবিনোদনসিরিয়াল

‘জবা’ থেকে ‘নীম ফুল’ হয়ে কোন গল্প বলবেন পল্লবী? এবার কোন সিরিয়ালের শেষ আসন্ন? রইল বিস্তারিত

কোনো ধারাবাহিকের শেষ কথা কিন্তু টিআরপি। এই টিআরপি যদি ভালো হয়, সেই ধারাবাহিকের সময়সীমা দুবছর। কিন্তু টিআরপি খারাপ হলেই, বছর ঘুরতে না ঘু্রতেই ধারাবাহিকের আয়ু শেষ হয়ে যায়। আমরা এরকম উদাহরণ বেশি দেখেছি, স্টার জলসার পর্দায়। এই চ্যানেলে যেমন একের পর এক পুরানো ধারাবাহিকের অবসান ঘটেছে, তেমনই একের পর এক নতুন ধারাবাহিকের সূচনা ঘটেছে।

কিন্তু এই তালিকায় পিছিয়ে ছিল জি বাংলা। কিন্তু জি বাংলাও তাদের কার্যকলাপ দেখিয়ে দিল। এই চ্যানেলে আসছে নতুন ধারাবাহিক ‘নিম ফুলের মধু’র (Neem Fuler Modhu) । সম্প্রতি সামনে এসেছে ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো। লিড চরিত্রে দেখা যাচ্ছে, যমুনা ঢাকি খ্যাত অভিনেতা সংগীত তথা অভিনেতা রুবেল দাস, বিপরীতে রয়েছেন কে আপন কে পর খ্যাত অভিনেত্রী জবা তথা অভিনেত্রী পল্লবী শর্মা (Pallavi Sharma)। এছাড়াও রয়েছেন, লিলি চক্রবর্তী, বিশ্বনাথ দত্ত সহ আরও অনেক অভিনেতা।

zee bangla upcoming serial neem fuler modhu

প্রোমো তে দেখা যাচ্ছে, পর্ণা যে পরিবারের মেয়ে সেই পরিবারে অনেকটা স্বাধীনতা রয়েছে, কিন্তু রুবেলের পরিবার অনেকটা রক্ষণশীল। রুবেল মায়ের কথামতোই চলে। তাঁর মা যাকে ঠিক করে দেবে সে তাকেই বিয়ে করবে। ছেলের বাড়ি একটা যৌথ পরিবার, পর্ণা মনে করে, তাঁর পাশে যদি তাঁর স্বামী থাকে, সে সব মানিয়ে নিতে পারবে।

কিন্তু ছেলে মায়ের আঁচলে বাঁধা, বিয়ে করতে যাওয়ার সময় মায়ের কথা অনুযায়ী সে বলে, তোমার জন্য দাসী আনতে যাচ্ছি। এরপর দেখা যায়, ফুলশয্যার দিন পর্ণা রুবেলকে একটা ঘড়ি উপহার দেয়, কিন্তু রুবেল কিছুই দেয়না। সেটাও পর্ণা অ্যাডজাস্ট করে নেয়। ফুলশয্যার পর দিন দেরী করে ঘুম থেকে ওঠায় শাশুড়ি বেড টি নিয়ে ডাকতে যায়।

পর্ণা ভাবে এই বেড টি তাঁর জন্য, কিন্তু তা নয়, ওটা ছিল ওর স্বামীর জন্য। এবং শাশুড়ি জানান, ফুলশয্যা শেষ এবার ঘোমটা দিয়ে নীচে চলো। পর্ণার দিদিশাশুড়ি তাঁর মনে সাহস জুগিয়ে বলে, ‘বিয়ের প্রথম বছর হল নীম ফুলের মধু। এই তেতোটুকু পার করলে তবেই মিঠের হদিশ পাবি।’ বোঝায় যাচ্ছে, এটা একটা পারিবারিক ড্রামা।

একজন নতুন বৌ কিভাবে নতুন পরিবারে মানিয়ে নেয় বা নতুন পরিবার কিভাবে তাদের নতুন বৌকে মানিয়ে নেই সেটা নিয়েই হতে চলেছে এই গল্প। বেশ ভালোই জমবে। তবে কার পরিবর্তে এই ধারাবাহিক আসছে তা জানা যায়নি। তবে সম্ভাবনা রয়েছে লালকুঠি শেষ হওয়ার। এখন দেখা যাক, সময়ই উত্তর দেবে। তবে গল্পের এমন একটা নামের মাঝে লুকিয়ে আছে দর্শকের জন্য অনেকখানি বিনোদন।

1Minutenewz Google News Subscribe
Back to top button