খবরগসিপবিনোদনভাইরালসিরিয়াল

শুটিংয়ে চোট পেলেন মিঠাই, মিঠাইকে পর্দায় এখন দেখা যাবে না! অভিনেত্রীকে নিয়ে উদ্বিগ্ন অনুরাগীরা

বাংলা বিনোদন জগতে বর্তমানে সেরা সিরিয়াল মিঠাই (Mithai)। মিঠাই দেখতে ভালোবাসেন ৮ থেকে ৮০ সকলেই। সিরিয়াল প্রেমীদের কাছে মিঠাই শুধু একটা ধারাবাহিক নয় মিঠাই লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষের আবেগ। মিঠাইকে একদিন পর্দায় না দেখলে দর্শকের মন খারাপ হয়ে যায়। মিঠাইয়ের হাসিখুশি স্বভাব সকলকে মাতিয়ে রাখে। পর্দার সাথে সাথে পর্দার বাইরেও বেশ প্রাণোচ্ছল মিঠাই অভিনেত্রী সৌমিতৃষা কুন্ডু।

অসাধারণ অভিনয়ে দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। একজন শিল্পীর যে তার কাজেই আসল পরিচয় পাওয়া যায়। সৌমিতৃষা কুন্ডু (Soumitrisha Kundu) সুন্দরী অভিনেত্রী এবং তার অভিনয় দক্ষতাও অসাধারণ। মিঠাই হয়ে সকলের মনে বসে গেছেন তিনি। সম্প্রতি মিঠাই ধারাবাহিকে চলছে টানটান উত্তেজনা। প্রথমে ওমির সিদ্ধার্থকে মারার প্রচেষ্টায় মিঠাইয়ের গুলি লাগলো। সে ছিল এক কঠিন মুহূর্ত মিঠাই প্রেমীদের জন্য।

mithai actress soumitrisha kundu injured in shooting

প্রসঙ্গত, এরই মাঝে সকলের প্রিয় চঞ্চল অভিনেত্রী শুটিংয়ে আবারও আহত হয়েছেন। অভিনেত্রী সৌমিতৃষা বেশ এই নিয়ে কয়েকবার আহত হলেন। একবার তার পায়ে বেশ গুরুতর চোট লেগেছিলো। এবার তার কানে লাগলো চোট। অভিনেত্রী নিজেই সেই ছবি শেয়ার করেছেন সোশ্যাল সাইটে। তার ছবি দেখে অনুরাগীরা বেশ উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। এক অনুরাগী বলেছেন, ‘আমরা কি আমাদের মিঠাইকে কোনদিন সম্পূর্ণ অক্ষত দেখতে পাবো না?’

এদিকে ধারাবাহিকে এক পর্ব মিটতেই আবারও আরেক পর্ব শুরু। বর্তমানে মিঠাই দেখে অনুরাগীদের চোখের জল থামছেনা কিছুতেই। শুরু থেকেই মিঠাই ছিল দর্শকের হাসির কারণ। সব সময় মনোহরার হাসিখুশি পরিবেশ দর্শকের মন ভালো করে দিত। মুখে ফোটাতো একচিলতে হাসির রেখা। তবে বাস্তব জীবনের মতোই সর্বদা সকলের সুখের মুহূর্ত দীর্ঘস্থায়ী হয়না। আর সেটাই ধারাবাহিকের পর্দায় ফুটিয়ে তোলার চেষ্টায় বোধহয় মিঠাইয়ের লেখক।

mithai actress soumitrisha kundu injured in shooting

ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী গোটা মোদক পরিবার এক খারাপ ও কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে এখন। শত্রুর শেষ হলেও শত্রুতা হয়তো এখনো বাকি রয়ে গেছে। ওমির মৃত্যু দেখানো হয়েছে। ধারাবাহিকে ওমির গুলি লেগেছে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ওমি ও সিদ্ধার্থের হাতাহাতি হওয়াতে সিদ্ধার্থ ওমির খুনের দায়ে জেলে। বেশ ভেঙে পড়েছে মিঠাইও। তবে যাদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পরিবার পাশে থেকে লড়াইয়ে সাথ দেয় তারা অনায়াসে অনেক কঠিন সময় হাসিমুখে পার করে দিতে পারে।

আরও পড়ুনঃ মারা যায়নি ওমি, আবার ফিরবে সে! নিজে মুখে সেকথা জানালেন ‘মিঠাই’ অভিনেতা জন ভট্টাচার্য

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SOUMITRISHA (@soumitrishaofficial)


মিঠাইতেও তাই হবে এমনটাই আশা দর্শকের। মিঠাই পরিবার একটা মিষ্টি যৌথ পরিবার যেখানে সহজে কেউ হার মেনে নেয়না। সবসময় সবাই একে অপরের পাশে থাকে। প্রসঙ্গত, মিঠাইয়ের এই চড়াই উৎরাই দর্শকদের বেশ পছন্দও হচ্ছে।কিছু ক্ষেত্রে খারাপ লাগলেও ভালো লাগার প্রমানটা টিআরপি তালিকায় স্পষ্ট। আবারও মিঠাই সিরিয়াল পর পর কয়েক সপ্তাহ টিআরপি তালিকায় টপ করেছে। আগামী দিনেও মিঠাই সেরা থাকবে দর্শকের চোখে।

1Minutenewz Google News Subscribe
Back to top button