পর্ণা-সৃজনের হানিমুন আটকাতে গিয়ে বেজায় বিপদে ইশা! পর্ণার বুদ্ধিমত্তার প্রশংসায় দর্শকেরা

Neem Phooler Madhu : জি বাংলার (Zee Bangla) প্রত্যেকটি ধারাবাহিকেই এখন চলছে ধুন্ধুমার পর্ব। তার মধ্যে একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘নিম ফুলের মধু’ (Neem Phooler

Saranna

neem phooler madhu serial audience praised porna for her intelligence

Neem Phooler Madhu : জি বাংলার (Zee Bangla) প্রত্যেকটি ধারাবাহিকেই এখন চলছে ধুন্ধুমার পর্ব। তার মধ্যে একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘নিম ফুলের মধু’ (Neem Phooler Madhu)। সেই প্রথম থেকে আজ পর্যন্ত ধারাবাহিকটি নিয়ে দর্শকদের উত্তেজনার শেষ নেই। প্রথম থেকেই পর্ণার বুদ্ধিমত্তা দর্শকদের মনে আনন্দ দিয়েছে, আর তাই পর্ণা সকলের মনে বেশ জায়গা করে নিয়েছে। সকলের মনে জায়গা করে নিলেও নিজের শাশুড়ির কাছে জায়গা করে নিতে পারেনি।

তাই সবসময় পর্ণার বিরুদ্ধে শাশুড়ি কৃষ্ণা ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছেন। কয়েকদিন হল শেষ হয়েছে সৃজন আর পর্ণার বিবাহবার্ষিকী। আর সেই উপলক্ষ্যে দুজনের মিলনটাও হয়ে গেছে। ডিভোর্সের পাঠও মোটামুটি ভাবে চুকে গেছে। এই সুযোগেই সৃজনের বাবা বৌমা এবং ছেলের জন্য হানিমুনের টিকিট কেটে দেয়। প্লেনে করে সৃজন আর পর্ণা যাবে হানিমুনে।

neem phooler madhu serial parna give lesson krishna and isha

 

এই সুখ কি আর সহ্য হয়, পর্ণার শাশুড়ির। তিনি এবার নতুন ফন্দি আঁটলেন। কৃষ্ণার এখন সহযোগী হয়েছে ইশা। মৌমিতাকে না জানিয়েই ইশা আর কৃষ্ণা দুজনে পরিকল্পনা করে সৃজন আর পর্ণার হানিমুনটা আটকে দেয়। কিন্তু দেয় বললে কি আর হবে, পর্ণা ঠিকই তাদের হানিমুনের ব্যবস্থা করে নেয়। ইশা সৃজন আর পর্ণার হানিমুনের টিকিটটা ছিঁড়ে ফেলে দেয়। আর এই সময় ঘরে প্রবেশ করে পর্ণা।

পর্ণা এসে বলে, ‘হানিমুনে তো আমি যাবই। তার আগে এই ভিডিওটা সৃজনকে দেখাব। সৃজন জানতে পারবে তাঁর মা কেমন? ইশা কেমন?’ এর ফলে ইশার চাকরিটাও যাবে, আর মায়ের প্রতি শ্রদ্ধাও চলে যাবে। এই কথা শুনে ভয় পেয়ে যায় সকলে। এরপর কি করবে ভেবে পায়না। কৃষ্ণা ইশাকে বলে, আমি কোনোভাবেই বাবুর কাছে খারাপ হতে পারব না।

neem phooler madhu serial audience praised porna

কিছু একটা করতে হবে। পর্ণাকে সকলে অনুরোধ করে, সে যেন এমনটা না করে। পর্ণা তাদের জানায়, ইশা যদি এখনই দুটো নতুন টিকিটের ব্যবস্থা করে দেয়, তাহলে সে এই ভিডিও কাউকে দেখাবে না। ইশা ভয়ে টিকিটটা কেটে দেয়। এরপর তারা পর্ণাকে বলে ভিডিওটা ডিলেট করে দিতে। তখন পর্ণা জানায়, সে কোনো ভিডিওই করেননি। এই কথা শুনে সকলেই অবাক হয়ে যায়।

Related Post